টাইম ম্যানেজমেন্ট বইয়ের পর্যালোচনা তথা বুক রিভিউ ০৩
টাইম ম্যানেজমেন্ট (পেপারব্যাক)

টাইম ম্যানেজমেন্ট বইয়ের পর্যালোচনা তথা বুক রিভিউ ০৩

ব্রায়ান ট্রেসি রচিত টাইম ম্যানেজমেন্ট (সময় ব্যবস্থাপনা) বইয়ের অধ্যায় আছে মোট ২১টি। আমি দ্বিতীয় অধ্যায়ের কিছু বক্তব্য তুলে ধরছি। এভাবে পরবর্তী অধ্যায়গুলোর বক্তব্য তুলে ধরব এবং শেষে আলোচনা করব।

অধ্যায় ৩ – আপনার রূপকল্প ও সংকলের ব্যাপারে চিন্তা করুন।

১। আমি গত কয়েক বছরে প্রকাশিত বইয়ের মধ্যে সবচেয়ে ভালো ও প্রগাঢ় বই হিসাবে দেখি জনাব ড্যানিয়েল কানেম্যানের থিঙ্কিং, ফার্স্ট এন্ড স্লো। তার বইয়ের সারমর্ম হচ্ছে আমরা আমাদের প্রতিদিনকার জীবনের বিভিন্ন পরিস্থিতি নিয়ে দুই ধরনের চিন্তা করব। এক হচ্ছে দ্রুত চিন্তা। দুই ধীর চিন্তা।

২। এমব্রোস বিরাম তার ‘The Devil’s Dictionary’ তে লেখেন, ‘অন্ধ গোঁড়ামির সংজ্ঞা হচ্ছে আপনি যখন আপনার লক্ষ্য ভুলে যান তখন আরও দ্বিগুণ উৎসাহে আপনার চেষ্টা বৃদ্ধি করা।’

৩। আপনি যে কাজই করুন না কেন তার পরিণাম কী হবে তা মাথায় রাখুন। আপনি কী চান তা বাদ দিন। আপনার আশা অনুযায়ীই যে ফলাফল ঘটবে তা না-ও হতে পারে। বাস্তবতা দেখুন। বেশিরভাগ সময় আমরা আমাদের আশায় এতই বুদ হয়ে থাকি যে, প্রকৃত চিত্র দেখেও বুঝতে পারি না। তাই নিজের চাওয়ার এই কুয়াশাকে দূর করুন এবং বাস্তবতাকে স্পষ্টভাবে দেখুন। 

৪। সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে, আপনার কাজের পদ্ধতিসমূহ নিয়েও প্রশ্ন তুলুন। পিটার ড্রুকার যেমন বলেছেন, ‘প্রতিটি ব্যর্থতার মূল হচ্ছে কাজের ভুল পদ্ধতি এবং ঠিকভাবে পরিমাপ করতে না পারা।’

৫। অজানা কোন দার্শনিক বলেছিলেন, ‘জীবনের গতি বাড়ানোই যথেষ্ট নয়। জীবনে আরও অনেক কিছু আছে।’

এ ধরনের আরও পোস্ট পেতে কমেন্ট করুন। কারও (বাংলা বা ইংরেজি) কাগজের বই অথবা পিডিএফ দরকার হলে কমেন্ট করতে পারেন।

Leave a Reply